৫টি শ্রেষ্ঠ বাংলা কৌতুক - সেরা-সংগ্রহ.কম
X

Thursday, May 5, 2016

৫টি শ্রেষ্ঠ বাংলা কৌতুক

বাছাইকৃত ৫ টি বাংলা কৌতুক




ট্রাফিক পুলিশঃ

মিনিট দশেক তাড়া করে গতিবিধি লঙ্ঘন করা এক ট্রাক ড্রাইভারকে থামাল ট্রাফিক সার্জেন্ট। এরপর বললেন, বারবার গাড়ি থামাতে বলা সত্ত্বেও কেন তুমি থামালে না?
এক মুহূর্ত ভেবে নিয়ে ড্রাইভার বলল, আসলে হয়েছে কি স্যার, গত সপ্তাহে আমার স্ত্রী এক ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে পালিয়ে গেছে। তো আপনাকে আমার পেছনে ছুটতে দেখে মনে হলো, আপনি বোধহয় আমার স্ত্রীকে ফেরত দিতেই পিছু নিয়েছেন!

অলসঃ

এক সার্জেন্ট ২০ জন সেনাসদস্যের একটি দলের উদ্দেশে বললেন, ‘আমি ঠিক করেছি, তোমাদের মধ্যে সবচেয়ে অলস যে, তাকে সবচেয়ে সহজ কাজটা দেব। কে সবচেয়ে অলস? ১৯ জন সদস্যই হাত তুলল। সার্জেন্ট হাত না তোলা সদস্যটিকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘তুমি হাত তুলছ না কেন?’
সৈন্য: স্যার, হাত তুলতে কষ্ট হয়।

কিপটেঃ

মিসেস আজিজকে সবাই কিপটে হিসেবে জানে। আজিজ সাহেব মরে যাওয়ার পর তিনি পত্রিকায় শোক বিজ্ঞপ্তি দিতে গেলেন। বিজ্ঞাপন ম্যানেজারের সঙ্গে তার কথা হচ্ছে
মিসেস আজিজ : শোক বিজ্ঞপ্তির জন্য কত টাকা লাগবে?
ম্যানেজার : প্রতি পাঁচ শব্দ একশ টাকা।
মিসেস আজিজ : আমি মাত্র দুটো শব্দ ছাপাতে চাই : আজিজ মৃত।
ম্যানেজার : তবু আপনাকে এক শ টাকাই দিতে হবে। আপনি ইচ্ছা করলে আরও তিনটি শব্দ যোগ করতে পারেন।
মিসেস আজিজ : (একটু ভেবে নিয়ে) ঠিক আছে তাহলে ওটার সঙ্গে যোগ করে দিন টয়োটা বিক্রি হবে।

প্রচণ্ড বাতাসঃ

গ্রামের ছোট্ট এক ক্লাব ঘরে বসে তাস পেটাচ্ছে কয়েকজন।
একজন উঠে বলল: এক মিনিট! ছোট কাজ সেরে আসি।
সে ফিরে এলে দেখা গেল, তার সারা পোশাকে পানির ছিটা।
সবাই জিজ্ঞেস করল: বাইরে বৃষ্টি?
সে বলল: না, প্রচণ্ড বাতাস!

তালাঃ

সংসদ ভবনের গেটের সামনে ভাঙাচোরা একটা সাইকেলে তালা মেরে রেখে যাচ্ছিল এক লোক। তা দেখে হায় হায় করে ছুটে আসে দারোয়ান। চিৎকার করে বলে_ ওই ব্যাটা, এখানে সাইকেল রাখছিস কী বুঝে? জানিস না, এ পথ দিয়ে এমপি, মন্ত্রী-মিনিস্টাররা যাতায়াত করেন।

লোকটা একগাল হেসে জবাব দেয় কোনো সমস্যা নাই ভাইজান, সাইকেলে তালা মাইরা দিছি।